খবরদেশলীড

দিনাজপুর সদর হাসপাতালে আগুনের ঘটনার তদন্ত শুরু, পুড়েছে জরুরি ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম

মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর প্রতিনিধি :

২৫০ শয্যাবিশিষ্ট দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে স্টোর রুমে রক্ষিত ওষুধপত্রসহ প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকার বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম পুড়ে হয়ে গেছে।

বুধবার (২ সেপ্টেম্ব) সন্ধ্যা আনুমানিক পৌনে ৬টার দিকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মেহফুজ তানজিল জানান, বিড়ি-সিগারেটের আগুন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। সিগারেটের আগুন থেকে জেনারেল হাসপাতালের স্টোর রুমের বাইরে উত্তরে পাশে পড়া থাকা খড়কুটায় আগুন ধরে যায়। সেই আগুন হাসপাতালের স্টোর রুমের জানালার কাঁচ ফেটে গিয়ে ভিতরে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি দল প্রায় ঘন্টাখানিক চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। ততক্ষনে স্টোর রুমে রক্ষিত প্রয়োজনীয় ওষুধপত্রসহ বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম পুড়ে যায়।

দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ পারভেজ সোহেল রানা জানান, আনুমানিক ৫টা ৪৫ মিনিটের সময় আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিষের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ঘন্টাখানিক চেষ্টার পর সন্ধ্যা আনুমানিক ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। তিনি জানান, এই আগুনে হাসপাতালের স্টোর রুমে রক্ষিত ওষুধপত্রসহ প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকার বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম পুড়ে হয়ে গেছে। তবে ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মেহফুজ তানজিল ওষুধপত্রসহ আনুমানিক আড়াই লক্ষ টাকার বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম পুড়ে গেছে বলে দাবী করেছেন। অগ্নিকান্ডের কারণে ৭০ জন রোগীকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন দিনাজপুর সদর ৩ আসনের এমপি ও জাতীয় সংসদরে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম, সিভিল সার্জন ডাঃ আব্দুল কাদ্দুছ, পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন।

অগ্নিকান্ডের সময় হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগিসহ হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্স ও অন্যান্য কর্মচারীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।
Comments