খবরজাতীয়নার্সলীড

নরসিংদীর শিবপুরে নার্সকে গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারনের মামলায় আটক ১

নরসিংদীর শিবপুরে একটি বেসরকারি হাসপাতালের নার্সকে (২০) গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের ঘটনায় এক অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এর আগে গত মঙ্গলবার রাতে ঘটে ওই গণধর্ষণের ঘটনা। পরে বুধবার শিবপুর মডেল থানায় দুজনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরও দুজনসহ চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন নির্যাতিতা ওই নার্সের পিতা।

আসামিরা হলো- শিবপুরের মজলিশপুর এলাকার তাঁরা ভূইয়ার ছেলে হারুন ভূইয়া (২০), একই এলাকার মতিন কমাণ্ডারের ছেলে মনির ভূইয়া (২০) ও অজ্ঞাতনামা আরও দুজন।

নির্যাতিতা নার্সের পরিবার ও পুলিশ জানায়, শিবপুরের মজলিশপুরে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যাওয়া ছোট বোন সমস্যায় পড়েছেন জানিয়ে দ্রুত যাওয়ার জন্য ওই নার্সকে ফোনে খবর দেয় অভিযুক্ত হারুন। নিজের ছোট বোনের সমস্যার কথা শুনে এবং বোনকে ফোনে না পেয়ে রাতেই শিবপুরে যান ওই নার্স। যাওয়ার পথে রাত ১০টার দিকে মজলিশপুর এলাকায় পৌঁছলে অভিযুক্ত মনির ভূইয়া তার ছোট বোনের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে ওই নার্সকে একটি কলাক্ষেতে নিয়ে যায়। সেখানে যাওয়ার পর হারুন, মনির ও অজ্ঞাতনামা আরও দুজন তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এসময় মোবাইল ফোনে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে তারা।

পরে অজ্ঞাত দুজন চলে গেলে অভিযুক্ত হারুন ও মনির ওই নার্সকে অসুস্থ অবস্থায় কলাক্ষেতে পড়ে আছে বলে তার আত্মীয়কে ফোনে খবর দেয়। খবর পেয়ে নির্যাতিতা ওই নার্সের আত্মীয়রা তাকে কলাক্ষেত থেকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে থানায় অভিযোগ দেয়া হলে পুলিশ বুধবার নির্যাতিতা ওই নার্সের ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠায়।

এদিকে, আজ অভিযুক্তদের মধ্যে মনির ভূইয়া নামে একজনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হলে তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মনির ধর্ষণে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।