গুণীলীড-6

সুরাইয়ার ১৪ চিকিৎসককে সম্মাননা

নিরাময়২৪.কম রিপোর্ট :: মায়ের গর্ভে গুলিবিদ্ধ মাগুরার শিশু ও তার মায়ের চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য মাগুরা সদর হাসপাতাল এবং ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৪ চিকিৎসককে সম্মাননা দেয়া হয়েছে। সোমবার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণের উদ্যোগে এই সম্মাননা দেওয়া হয়।

মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম চিকিৎসকদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘চিকিৎসকদের আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার কারণে এটা সম্ভব হয়েছে। ভাল কাজের স্বীকৃতি দিতে হবে। তাহলে চিকিৎসকরা ভাল কাজ করতে উৎসাহ পাবে।’

অনুষ্ঠানের শুরুতে মন্ত্রী গুলিবিদ্ধ শিশু সুরাইয়া ও মায়ের চিকিৎসায় মাগুরা এবং ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের অভিজ্ঞতার বর্ণনা শোনেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মিজানুর রহমান, নিউনেটোলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. মো. আবিদ হোসেন মোল্লা, মাগুরা জেলা সিভিল সার্জন ডা. এফ বি এম আব্দুল লতিফ, মাগুরা সদর হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা. মো. শফিউর রহমানসহ মোট ১৪ জনকে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়।

এ সময়ে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নুরুল হক, বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খানসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। গত ২৩ জুলাই মাগুরা শহরের দোয়ারপাড় এলাকায় সরকার দলীয় দুটি সংগঠনের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলার সময় গর্ভবতী নাজমা খাতুন গুলিবিদ্ধ হন। প্রথমে তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওই দিন রাতেই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে মাতৃগর্ভে গুলিবিদ্ধ শিশুটির জন্ম হয়। গুরুতর আহত শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ২৫ জুলাই ঢাকায় আনা হয়।