লীড-9শিক্ষা কথা

রেসিডেন্সির জন্য প্রস্তুতি শুরু হোক এখনি

ডা. সাঈদ সুজন :

কারা রেসিডেন্সি পরীক্ষা দিতে পারবে এটা নিয়েই অনেকে এখনো জানেন না । নন-বিসিএস যারা আছেন তাদের জন্য নিয়ম হলো- ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারী মাসের ২৮ তারিখ বা তার আগের যেকোনো দিন ইন্টার্ন শেষ করেছেন এমন চিকিৎসক রেসিডেন্সি পরীক্ষা দিতে পারবেন । আর বিসিএস ক্যাডারদের জন্য সরকারী নিয়মে গ্রামে দুই বছর বা দুর্গম অঞ্চলে এক বছর কাটিয়েছেন- তারাও পরীক্ষা দিতে পারবেন ।।

রেসিডেন্সি পরীক্ষার প্রিপারেশন জিনিসটা হাতুড়ির মত। লোহা দিয়ে লোহা পিটানোর মত। আকার চেঞ্জ করা যাবে, ইমপ্রুভ করা যাবে না। আর কেউই ফুল প্রিপারেশন নিয়া যেতে পারবে না। কারন ঘর সামলে, চাকুরী করে, ট্রেইনিং করে কেউই ফ্রি নাই পড়ার জন্য । তবে রেসিডেন্সি এর পরীক্ষার আগে কমপক্ষে ৬০ দিন পিজি লাইব্রেরীকে টেম্পোরারি ঠিকানা বানানো উচিৎ।

এনাটমি :
বেইলি লাভের প্রথম ৫ অধ্যায় পূর্ণ ও বাকী অধ্যায় গুলোর প্রথম প্যারা (সার্জিক্যাল এনাটমি) প্যারা পড়তে হবে। এছাড়া কিছু নার্ভ, ব্লাড ভেসেল ইঞ্জুরি ইফেক্ট, ইমপোরট্যান্ট অর্গান রেগার্ডিং ফাইন্ডিংস ইত্যাদি জানা জরুরী।

ফিজিওলজি ও বায়োকেমিস্ট্রি :
জেনারেল ফিজিওলজি ভিশন অথবা গ্যানং থেকে। ৫ অধ্যায়। সাথে সাথে গুরুত্বপূর্ণ হলো — রেনাল, ইলেক্ট্রোলাইট, রেস্পিরেটরি ও জি আই টি ভালো করে জানতে হবে। হরমোনের মেটাবলিজমে কি কি ইফেক্ট জানা জরুরী।

প্যাথলজি :
জেনারেল প্যাথলজি ও হেমাটোলজি পড়তে হবে খুব ভালো করে। স্যাড বাট ট্রু হলো – প্রশ্ন আসে রবিনস থেকে। তাই গাইড অথবা খালেক সম্পূর্ণ না। হেমাটোলজি থেকে বিশেষ করে ব্লিডিং ডিজওর্ডার গুলো, এনেমিয়া গুলোর ও লিউকেমিয়া এর স্পেসিফিক ফেচার ও ইনভেস্টিগেশন ।

ফার্মার জন্য ভিশন পড়লেই যথেষ্ট হবে। অথবা আগে ইয়ারের প্রশ্নের গাডলাইন টপিক ধরে পড়তে পারেন ।।

মাইক্রোবায়োলজি :
সবচেয়ে বেশি প্রশ্ন আসে এই সাবজেক্ট থেকে। এই সাবজেক্ট এর জন্য আপনি পুরোটাই লেভিন্সন মাইক্রোবায়োলজি রিভিউ পড়ুন। তাও আন্ডার গ্রাজুয়েট আমলের। সেখানে পয়েন্ট করে দেয়া আছে। সব অরগানিজমের ফেচার গুলো জানতেই হবে। রেগার্ডিং অমুক অরগানিজম দিয়েই প্রশ্ন আসে ।

আর পিছনের ৫ বছরের প্রশ্ন সলভ করা রেসিডেন্সি পরীক্ষার জন্য অত্যাবশ্যক ।।

৩৯ বিসিএস এর গরন গরম প্রিপারেশন কাজে লাগাতে পারবেন অনেকেই। বিসিএস এর সিলেবাস যদি কেউ ভালো করে বুঝে পড়ে থাকেন, তার প্রিপারেশন ৬০% হয়ে যাবে । বাদ থাকবে- মাইক্রোবায়োলজি, ফার্মা ও সার্জিক্যাল এনাটমি ।

যেহেতু নভেম্বরের প্রথম বা দ্বিতীয় সপ্তাহে রেসিডেন্সি পরীক্ষা হয়- তাই হাতে পূর্ণ তিন মাস সময় আছে । কাজে লাগাতে পারলে কেল্লা ফতে ।

রেসিডেন্সি রিলেটেড সব ইনফরমেশন, সাজেশন, নোট পেতে আপনার মেডিকেল ও ডেন্টাল ফ্রেন্ডদের এই গ্রুপে এড করুন ।। ২০০ মার্কের মডেল্ট টেস্ট, ৩ ঘন্টায় দেয়ার প্রস্তুতি শুরু করুন ।।

ফ্যাকাল্টি ভিত্তিক মার্ক ডিস্ট্রিবিউশন পরের পোস্টে জানিয়ে দেয়া হবে।।

সবার জন্য শুভ কামনা ।।